ফেরিঘাটে ভাঙন, শিমুলিয়ায় ৪ ছোট ফেরিতে চলছে পারাপার

Ferighat -1

মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলার শিমুলিয়া ঘাট এলাকায় বিআইডব্লিউটিসির ফেরি ঘাটের ৪ নম্বর অ্যাপ্রোচ রোড সহ বেশ কয়েকটি অঞ্চল ধ্বংসের দ্বিতীয় পর্যায়ে ধ্বংস হয়েছে। বৃহস্পতিবার ভোর সাড়ে ৫ টার দিকে, ভিওআইপি ফেরি নং-এর একটি বিশাল এলাকা নদী ধুয়ে ফেলা হয়েছিল। বর্তমানে সেই রুটে লঞ্চ চলাচল বন্ধ রয়েছে। স্পিডবোট এবং ফেরি সীমিত।

এর আগে ২ 26 জুলাই (মঙ্গলবার) শিমুলিয়া পার্শ্বের ৩ নং রো রো ফেরি ঘাটের অ্যাপ্রোচ রোড সহ বেশ কয়েকটি অঞ্চল নদীতে ডুবে ছিল।

দুর্ঘটনা এড়াতে ঘাট কর্তৃপক্ষ বৃহস্পতিবার সকাল ৮ টা থেকে শিমুলিয়া-কাঁথালবাড়ী রুটে ফেরি সহ সব ধরণের জাহাজ বন্ধ করে দেয়। পরে, ৪ টি ছোট ছোট ফেরিগুলি ঘাট ১ এবং ২ দিয়ে চলাচল শুরু করে এবং যানবাহন সীমিত পরিসরে যেতে থাকে। তবে এই রুটে লঞ্চ চলাচল বন্ধ করা হয়েছে। স্পিডবোটগুলি সীমিত স্কেলে কাজ করছে। প্রশাসন অপেক্ষায় থাকা যানবাহনকে বিকল্প পথ ধরতেও বলছে।

বিআইডব্লিউটিসির শিমুলিয়া ঘাটের ব্যবস্থাপক সাফায়েত আহমেদ জানান, দুপুর আড়াইটার দিকে এই ধ্বংসযজ্ঞ শুরু হয়েছিল। ইতোমধ্যে, ভিওআইপি ফেরি ঘাট নং 4 সহ কয়েক শতাধিক অ্যাপ্রোচ রাস্তা এবং ঘাটগুলি নদীর তলদেশে ভেসে গেছে। ধ্বংসাবশেষটি ২ নম্বর ফেরি ওয়ার্ফের কাছাকাছি চলে গেছে, তাই সকাল ৮ টায় কাঁথালবাড়ির উদ্দেশ্যে শেষ ফেরি ছেড়ে যাওয়ার পরে এই রুটে ফেরি চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। পরে, 4 টি ছোট ফেরি আবার ঘাট নং 1 এবং 2 পার শুরু করে।

ভবতোষ চৌধুরী নূপুর / এফএ / পিআর