যুক্তরাষ্ট্রে বঙ্গবন্ধুর প্রথম স্থায়ী প্রতিকৃতি স্থাপন

আমাদের

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রথম স্থায়ী প্রতিকৃতি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মিশিগান রাজ্যে নির্মিত হয়েছে। মিশিগান রাজ্য আওয়ামী যুবলীগ রবিবার (১৮ আগস্ট) সকালে 9 ফুট উঁচু এবং 5 ফুট চওড়া পাথরের প্রতিকৃতি তৈরি করেছে।

হামিগাম্যাকের বাংলাদেশ অ্যাভিনিউতে (কানাট স্ট্রিট) প্রতিকৃতি উন্মোচন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন মিশিগান ১৪ তম জেলার কংগ্রেস মহিলা ব্রেন্ডা লরেন্স। বিশেষ অতিথিরা ছিলেন মিশিগানের রাজ্য সিনেটর পল ওজনো ৯ নং জেলা এবং হাউস অফ রিপ্রেজেন্টেটিভস জেলার লরি স্টোন ২.। ইউএস আওয়ামী যুবলীগের আহ্বায়ক একেএম তারিকুল হায়দার চৌধুরী প্রতিকৃতিটি উন্মোচন করেছেন।

ব্রেন্ডা লরেন্স তার বক্তব্যে বলেছিলেন, “শেখ মুজিবুর রহমানের মতো বিশ্বমানের রাজনৈতিক নেতার প্রতিকৃতি অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে আমি নিজেকে ভাগ্যবান মনে করি।” তাঁর আদর্শ এখনও বিশ্ববাসী অনুসরণ করে চলেছেন।

মিশিগান রাজ্য যুবলীগের সভাপতি জাহেদ মাহমুদ বলেছেন, “আমি বিশ্বাস করি যে যুক্তরাষ্ট্রে যুক্তরাষ্ট্রে এবং অন্যান্য জাতিগত গোষ্ঠীতে বেড়ে ওঠা বাংলাদেশিরা বাংলাদেশের স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের গৌরবময় ক্যারিয়ার সম্পর্কে জানতে আগ্রহী হবেন।”

আমাদের

অনুষ্ঠানের অতিথি এবং যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী যুবলীগের আহবায়ক কমিটির সদস্য রিয়াজুল কাদের লস্কর মিঠু বলেছেন, আমরা মিশিগান আওয়ামী যুবলীগের মাধ্যমে ইতিহাস সৃষ্টি করেছি। এটি আমেরিকার মাটিতে বঙ্গবন্ধুর প্রথম স্থায়ী প্রতিকৃতি।

সভাপতিত্ব করেন মিশিগান রাজ্য যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ বদরুদ্দোজা জুনায়েদ। আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সাইকুল ইসলাম, মিশিগান আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুস শাকুর মাখন, মিশিগান মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক শহীদুর রহমান জাবেদ অনুষ্ঠানে অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন।

আমাদের

কমপক্ষে দুই শতাধিক নেতা-কর্মী ও দর্শক ফুল দিয়ে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানান। প্রতিকৃতির চার পাশে বিভিন্ন ধরণের ফুলের গাছ লাগানো হয়েছে। সুরক্ষার জন্য দুটি সিসিটিভি ক্যামেরা বসানো হয়েছে। বৈদ্যুতিক আলোক ব্যবস্থাও রয়েছে।

এসআর / জেআইএম