টাঙ্গাইলে চাহিদার চেয়ে গরু বেশি

টাঙ্গাইল-ঈদে গরু

চাহিদার চেয়ে টাঙ্গাইলে প্রায় ২০ হাজারেরও বেশি কোরবানি প্রাণী রয়েছে। আসন্ন Eidদুল আজহা উপলক্ষে জেলায় কোরবানির পশুর চাহিদা 63৩,৫46।। এর মধ্যে 90,522 টি প্রস্তুত। জেলা বেশ কয়েক বছর ধরে গবাদি পশু ও ছাগল উৎপাদনে স্বাবলম্বী।

জেলা প্রাণিসম্পদ অফিস সূত্রে জানা গেছে, গত কোরবানির theদে জেলায় কোরবানির পশুর চাহিদা ছিল ৪,,০৫২; 48 হাজার 53 প্রস্তুত ছিল। এই বছরের চাহিদা 63,546। 90 হাজার 522 প্রস্তুত।

এই Eidদুল আজহা, টাঙ্গাইল সদর উপজেলায় কোরবানির পশুর চাহিদা 12,036 তবে প্রস্তুত রয়েছে 18,065 টি। প্রস্তুত প্রাণীদের মধ্যে ৫,২62২ ষাঁড়, 12১২ টি ষাঁড়, 13১৩ টি গরু, ১৩ টি মহিষ, ৮,৩60০ ছাগল এবং ৫৯০ টি মেষ রয়েছে।

কোরবানির পশুর মধ্যে রয়েছে টাঙ্গাইল সদর উপজেলায় ১,,০65৫, বাসাইল উপজেলায় ১০,০৫০, সখিপুর উপজেলায় ১৪,১1১, মিরজাপুর উপজেলায় ৩,79৯১, দেলদুয়ার উপজেলায় ৩,০৮৩, নগরপুর উপজেলায় ,,৫75৫ এবং কালিহাতী উপজেলায় ৯৯, ২৯৩ টি। ভুনাপুর উপজেলায় ১৯,০৯২, গোপালপুর উপজেলায় ৪,৯৯২, মধুপুর উপজেলায় ২,২২৩ এবং ধনবাড়ী উপজেলায় ৩,৩৩৩ টি।

টাঙ্গাইল-ঈদে গরু-2

অতিরিক্ত জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। মোঃ আব্দুল মোতালেব জানান, করোনায় বন্যার কারণে এ বছর গরুর বাজার ভিড় হচ্ছে না। এতে কৃষকদের ক্ষতির সম্ভাবনা রয়েছে। আসন্ন Eidদুল আজহা কোরবানী হাটে ভেটেরিনারি মেডিকেল টিম ডিউটিতে থাকবে।

আরিফ উর রহমান টোগার / এএম / পিআর