মাত্র চার মি‌নি‌টেই শেষ ক‌রোনা পরীক্ষার অনলাইনের সি‌রিয়াল!

bangabandhu-1

বৃহস্পতিবার, সকাল সাড়ে ৯টা। রাজধানীর শাহবাগে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) ফিভার ক্লিনিক ও করোনা পরীক্ষা কেন্দ্রের প্রধান ফটকের বাইরে অপেক্ষা করছিলেন ইস্কাটন এলাকার বাসিন্দা রুহুল আমিন। গত কয়েকদিন যাবৎ তার স্ত্রীর জ্বর ও হালকা কাশি। জ্বর কমে গেলেও কাশি কমছে না।

করোনা আক্রান্ত কি না, সে সন্দেহ বিএসএমএমইউয়ের ল্যাবরেটরিতে স্ত্রীর নমুনা পরীক্ষার জন্য টানা কয়েকদিন যাবত অনলাইনে সিরিয়াল দেয়ার চেষ্টা করেন। কিন্তু তথ্য-উপাত্ত পূরণ করে সাবমিট করার পর দেখতে পান ওইদিনের সিরিয়াল দেয়া শেষ হয়ে গেছে। চারদিন পর তিনি সিরিয়াল পান। আজ স্ত্রীকে নিয়ে পরীক্ষা করাতে এসেছেন।

এ প্রতিবেদকের সঙ্গে আলাপকালে রুহুল আমিন বলেন, প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে ৯টার মধ্যে যে কোনো একটা সময়ে মাত্র তিন থেকে চার মিনিটের জন্য অনলাইনে সিরিয়াল দেয়ার সার্ভার ওপেন করা হয়। ওই সময় একসঙ্গে অসংখ্য মানুষ সার্ভারে প্রবেশের ফলে ইন্টারনেট স্পিড যাদের ভালো তারাই সিরিয়াল পান। বিষয়টি পরে বুঝতে ইন্টারনেট কিনি এবং সিরিয়াল পাই।

রাজধানীসহ সারাদেশে করোনা সংক্রমণ বাড়ছে। বর্তমানে রাজধানীসহ সারাদেশে সরকারি ও বেসরকারি পর্যায়ে ৬১টি আরটি-পিসিআর মেশিনে করোনাভাইরাসের নমুনা পরীক্ষা করা হচ্ছে। কিন্তু চাহিদা বেশি থাকায় অনেকেই সময়মতো পরীক্ষা করাতে পারছেন না। আবার পরীক্ষা করাতে পারলেও রিপোর্ট পেতে বিলম্ব হচ্ছে। রাজধানীর বিভিন্ন করোনাভাইরাস নমুনা পরীক্ষা কেন্দ্রের মধ্যে বিএসএমএমইউয়ের পরীক্ষা কেন্দ্রের প্রতি মানুষের আস্থা বেশি দেখা যাচ্ছে। অনলাইনে সিরিয়াল পেতে বিলম্ব হলেও অনেকেই এ প্রতিষ্ঠানটিতে পরীক্ষা করাতে চান বলে জানা গেছে।

বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি হচ্ছিল। বৃষ্টির মাঝেও বিএসএমএমইউয়ে পরীক্ষা কেন্দ্রে অনলাইনে সিরিয়াল দিতে স্বজনরা উপস্থিত হন।

বিএসএমএমইউ সূত্রে জানা গেছে, গত ১৫ জুন পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের করোনা ল্যাবে ২০ হাজারেরও অধিক পরীক্ষা সম্পন্ন হয় এবং ফিভার ক্লিনিকে আঠারো হাজার রোগীকে চিকিৎসাসেবা দেয়া হ‌য়ে‌ছে।

বিএসএমএমইউ উপাচার্য অধ্যাপক ডাক্তার কনক কান্তি বড়ুয়া জাগো নিউজের সঙ্গে আলাপকালে জানান, এতদিন করোনো রোগীদের শুধু পরীক্ষা করা হলেও রোগী ভর্তি রেখে চিকিৎসা দেয়া হতো না। সরকারি নির্দেশে বিএসএমএমইউয়ের কেবিন ব্লক করোনা রোগীর চিকিৎসার জন্য প্রস্তুত করা হচ্ছে।

এখানে আইসিইউতে চিকিৎসা সেবাসহ দুই শতাধিক করোনা রোগীকে চিকিৎসা সেবা দেয়া যাবে বলে তিনি জানান।

এমইউ/জেডএ/পিআর

.