করোনায় পঞ্চম পুলিশ সদস্যের মৃত্যু

করোনায় পঞ্চম পুলিশ সদস্যের মৃত্যু

.াকা, ২ মে – কর্নাভাইরাসজনিত কারণে অপর এক পুলিশ সদস্য মারা গেছেন। করোনায় পঞ্চম পুলিশ নিহত হয়েছেন। নিহত ব্যক্তির নাম সুলতানুল আরেফিন, উপ-পরিদর্শক (এসআই), পাবলিক অর্ডার ম্যানেজমেন্ট (পিওএম), মিরপুর।

শনিবার (২ রা মে) সকালে রাজারবাগের কেন্দ্রীয় পুলিশ লাইন্স হাসপাতালের আইসিইউতে তিনি মারা যান।

কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালের সুপার হাসান উল হায়দার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, সকাল 8:53 টায় তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

30 এপ্রিল করোনার চুক্তি করার পরে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। তিনি বলেছেন যে ইতিমধ্যে তার শ্বাসকষ্ট ছিল।

সহকারী পুলিশ মহাপরিদর্শক (মিডিয়া ও পিআর) মো। সোহেল রানা বলেন, ‘করোনার ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই করা আরেক পুলিশ সদস্য ডিউটি ​​করার সময় মারা গিয়েছিলেন। উপ-পরিদর্শক (এসআই) সুলতানুল আরেফিন (৪৪) দেশ ও জনগণের কল্যাণে আত্মত্যাগকারী পুলিশ। তিনি Dhakaাকা মহানগর পুলিশের পাবলিক অর্ডার ম্যানেজমেন্টের (পিওএম) পশ্চিম বিভাগে কর্মরত ছিলেন।

তিনি জানান, সুলতান আরেফিন করোনভাইরাস ধরা পড়ার পরে রাজারবাগ কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। তার অবস্থার অবনতি হলে তাকে নিবিড় পরিচর্যা ইউনিটে (আইসিইউ) স্থানান্তর করা হয়। শনিবার সকালে হাসপাতালে তিনি মারা যান।

তার গ্রামের বাড়ি জামালপুর জেলায়। তিনি তাঁর স্ত্রী, দুই কন্যা এবং এক পুত্র, পাশাপাশি অনেক আত্মীয় এবং প্রশংসক রয়েছেন। পুলিশি ব্যবস্থাপনায় লাশটি নিহতের গ্রামের বাড়িতে প্রেরণ করা হয়েছে। জেলা পুলিশের seniorর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে সেখানে জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। পরে ধর্মীয় বিধি মোতাবেক লাশ পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হবে।

সুলতানসহ বাংলাদেশ পুলিশের পাঁচ সদস্য করোনার যুদ্ধে আত্মহত্যা করেছিলেন। নিহত অন্যান্য পুলিশ সদস্যরা হলেন, ওয়ারী ট্র্যাফিক পুলিশের জসিম উদ্দিন, ডিএমপির পাবলিক অর্ডার ম্যানেজমেন্ট দক্ষিণ বিভাগের এএসআই। আবদুল খালেক, ডিএমপি ট্র্যাফিক উত্তর কনস্টেবল মো। আশেক মাহমুদ, পুলিশের বিশেষ শাখার (এসবি) এসআই নাজির উদ্দিন।

সূত্র: জাগো নিউজ
এমএন / 02 মে

Leave a Reply