শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে ৩ কিশোর নিহতের ঘটনায় আটক ১০

jagonews24

যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে (বালক) তিন কিশোর হত্যার ঘটনায় পুলিশ ১০ জনকে গ্রেপ্তার করেছে। শুক্রবার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ডিএসবি তৌহিদুল ইসলাম জাগো নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে বৃহস্পতিবার বিকেলে যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে তিন বন্দী নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও ১৪ জন। সংঘর্ষে কিশোর-কিশোরীর মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গেছে।

তবে হাসপাতালে ভর্তি কিশোরীরা বলেছে যে শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে অফিসার ও আনসার সদস্যদের নির্মমভাবে মারধরের কারণে এই হতাহতের ঘটনা ঘটেছে। এছাড়া পুলিশ ও প্রশাসনের seniorর্ধ্বতন কর্মকর্তারাও প্রাথমিকভাবে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

নিহতরা হলেন- শিবগঞ্জ, শিবগঞ্জের তালিবপুর পূর্বের নান্নু পরমানিকের ছেলে নাemম হোসেন (১৮), একই জেলার শেরপুর উপজেলার মহিপুর গ্রামের আলহাজ্ব নুরুল ইসলাম নুরের ছেলে রাসেল ওরফে সুজন (১৮) এবং রোকব মিয়া হাসান, দৌলতপুরের মহেশ্বরপাশা পশ্চিম সেনপাড়ার রোকব মিয়ার ছেলে। 16)।

এ ছাড়া খুলনা রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি একেএম নাহিদুল ইসলাম বৃহস্পতিবার গভীর রাতে যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্র ছেড়ে যাওয়ার পরে সাংবাদিকদের বলেন, “এখানে কোনও সংঘর্ষ হয়নি। আজকের ঘটনাটি একতরফা।”

তিনি আরও জানান, ঘটনাটি প্রায় ছয় ঘন্টা পরে জানানো হয়েছিল। স্থানীয় সাংবাদিকরাও সন্ধ্যায় হাসপাতালের কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে ঘটনাটি জানতে পেরেছিলেন। ঘটনাটি জেনে রাত দশটার পরে তিনি নিজেই শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে আসেন। এখানে কী ঘটেছে এবং কেন তা পুলিশ তদন্ত করবে। প্রশাসনও তদন্ত করবে। এবং যদি ক্ষতিগ্রস্থ কিশোর-কিশোরীদের স্বজনরা মামলা করে তবে পুলিশ মামলাটি গ্রহণ করবে। ঘটনার তদন্ত চলছে বলে তিনি আরও মন্তব্য করতে রাজি হননি।

মিলন রহমান / এফএ / এমএস