স্বাস্থ্যবিধি মেনে খোলা হয়েছে পর্যটন হোটেল

cover-and-in-(3)

করোনাভাইরাস সংক্রমণের কারণে ভারতজুড়ে দীর্ঘদিন লকডাউন ছিল। স্থবির হয়ে ছিল সব ধরনের কার্যক্রম। তবে বর্তমানে কিছুটা স্বাভাবিকের পথে হাঁটছে দেশটি। সবখানেই অনেকটা শিথিল হয়েছে নিয়ম-কানুন। তাই তো স্বাস্থ্যবিধি মেনে খুলে দেওয়া হয়েছে পর্যটন এলাকার হোটেল।

জানা যায়, করোনার ধাক্কা সামলে পর্যটন শিল্পকে ঘুরে দাঁড় করাতে চেষ্টা করে যাচ্ছে দেশটি। তবে হোটেল ব্যবসায়ীদের মনে প্রশ্ন, ‘পর্যটন শিল্প কী ঘুরে দাঁড়াতে পারবে?’ ফলে মন্দারমণি পর্যটন কেন্দ্রে হোটেলিয়ার্স সংগঠনের একটি সভা হয়। সেখানে সিদ্ধান্ত হয়, স্বাস্থ্যবিধি মেনে হোটেল খোলা যাবে।

সূত্র জানায়, সে ক্ষেত্রে পর্যটকদের প্রবেশপথেই থাকবে থার্মাল স্ক্রিনিংয়ের ব্যবস্থা। পর্যটকের ব্যাগপত্র সবই স্যানিটাইজ করা হবে। হোটেল রুম সংখ্যা যা হবে, তার অর্ধেক ভাড়া দেওয়া হবে। একজন পর্যটক চেক-আউট করার পর সেই ঘরও স্যানিটাইজ করা হবে। সে সময় অন্য ঘরে থাকতে দেওয়া হবে অন্য পর্যটককে। প্রত্যেকের হাতে গ্লাভস, মুখে মাস্ক পরতে হবে। বন্ধ থাকবে সুইমিং পুল ও কমিউনিটি হল।

cover-and-in-(2)

সূত্র আরও জানায়, একইভাবে তাজপুরের হোটেলিয়ার্সের সভায়ও সিদ্ধান্ত হয়। সেখানে গত ১৫ জুন থেকে সব হোটেল স্বাস্থ্যবিধি মেনে খোলা হয়েছে। তবে অনেক হোটেল ব্যবসায়ী জুন মাস অপেক্ষা করে হোটেল খুলতে চেয়েছেন।

দিঘার হোটেল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি দেবব্রত দাস বলেন, ‘সরকারি নির্দেশিকা জারি হয়েছে হোটেল খোলার জন্য। কিন্তু পর্যটক না এলে হোটেল খুলে কী হবে? মানুষ এখন এতটাই আতঙ্কিত যে, পরিবার নিয়ে পর্যটন কেন্দ্রে আসতে চাইবে না।’

cover-and-in-(2)

তবে অনেক হোটেল মালিক বলেন, পর্যটকদের আগ্রহ আছে। বেড়াতে আসার জন্য তারা হোটেল খুলেছে কি-না, তা জানতে ফোন করছেন।

সংবাদ প্রতিদিন/এসইউ/পিআর

.