দলীয়ভাবে আ.লীগ এক কোটির বেশি বৃক্ষরোপণ করেছে

বৃক্ষরোপণ

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে ঘোষিত বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির অংশ হিসাবে আওয়ামী লীগ ও এর মিত্র ও ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনের উদ্যোগে সারাদেশে এক কোটিরও বেশি গাছ রোপণ করা হয়েছে, ড। দেলোয়ার হোসেন।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী এবং বঙ্গবন্ধুর কনিষ্ঠ কন্যা শেখ রেহানার জন্মদিন উপলক্ষে রবিবার রাজধানীতে বাংলাদেশ বিজ্ঞান ও গবেষণা কাউন্সিলের (বিসিএসআইআর) সোনালু ও হৈমন্তী গাছ লাগানোর পরে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন। ।

দেলোয়ার হোসেন বলেছিলেন, “মুজিব বছর উপলক্ষে জননেত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত ১ কোটি বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির অংশ হিসাবে আমরা এই গাছগুলি রোপণ করছি।” বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারী উদ্যোগে এই কার্যক্রম চলছে। আমরা plantingতিহ্যবাহী গবেষণা ইনস্টিটিউট বিসিএসআইআরের সাথে এবং তাদের উদ্যোগে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচিতে যোগ দিয়েছি।

“আজ আমাদের শ্রদ্ধেয় শেখ রেহানার জন্মদিন,” তিনি বলেছিলেন। আমি তার জন্মদিনের সম্মানে দুটি গাছ লাগিয়েছি। তাদের একজন হৈমন্তী, অন্যটি সোনালু। এ দুটোই ফুলের গাছ। ফুল যেমন ছড়িয়ে দিয়ে মানুষকে সুগন্ধ দেয়, তেমনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের পরিবার ও তাঁর কন্যারাও সেই ফুলের মতো। তারা দেশের মানুষের জন্য যা কিছু আছে তা দিচ্ছে are এই কারণে রূপক অর্থে আমরা বঙ্গবন্ধুর স্মরণে এবং তাঁর কনিষ্ঠ কন্যা শেখ রেহানার সম্মানে এই দুটি ফুলের গাছ লাগিয়েছি। যতক্ষণ না বর্ষা অব্যাহত থাকবে আমরা বৃক্ষ রোপনের কার্যক্রম চালিয়ে যাব।

তিনি বলেন, আমরা ইতিমধ্যে দলীয় পর্যায়ে এক কোটিরও বেশি চারা রোপণ করেছি। আমাদের বন ও পরিবেশ উপ-কমিটির উদ্যোগে দেড় লক্ষ চারা রোপণ ও বিতরণ করা হয়েছে। এছাড়াও আমাদের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন সবুজ পরিবেশ আন্দোলনের উদ্যোগে ১৫ থেকে ১ lakh লক্ষ চারা রোপণ ও বিতরণ করা হয়েছে। আমাদের কার্যক্রম এখনও চলছে। আমরা থানা থেকে শুরু করে তৃণমূল পর্যায়ের আওয়ামী লীগের প্রতিটি জেলায় এই কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছি। পাশাপাশি আওয়ামী লীগের মিত্র ও ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনগুলিও গাছ লাগাচ্ছে।

দেলোয়ার হোসেন বলেছেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা হয়ত এক কোটি বলেছিলেন। আমরা যদি গাছের পরিমাণ গণনা করি তবে তা 5 কোটিতে যাবে। এছাড়া তিনি (শেখ হাসিনা) আরেকটি ঘোষণার মাধ্যমে আপনার সামনে বক্তব্য রাখবেন।

তিনি বলেন, দল ছাড়াও সরকারী, বেসরকারী, স্বায়ত্তশাসিত ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানও গাছ লাগিয়েছে। জাতির জনক সর্বদা দেশের মানুষ ও পরিবেশ সম্পর্কে চিন্তাভাবনা করেছেন। দেশের পরিবেশ বিবেচনায় এই বৃক্ষরোপণ চলছে।

এদিকে, মুজিবের শতবর্ষের কর্মসূচির অংশ হিসাবে, আজ বিসিএসআইআরায় বিজ্ঞান ল্যাবে চাটিম, নাগেশ্বর, আগর, মহুয়া, পলাশ ও অশোকের চারাও রোপণ করা হয়েছিল।

বিসিএসআইআর চেয়ারম্যান এ সময় উপস্থিত ছিলেন। আফতাব আলী শেখ সহ আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ উপ-কমিটির সদস্যরা।

এউএ / এনএফ / পিআর