আধিপত্যে লক্ষ্মীপুরে ছাত্রলীগের মারামারি

jagonews24

লক্ষ্মীপুরে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে লড়াই শুরু হয়েছে। আহত হয়েছেন তিন জন। বুধবার (২১ অক্টোবর) সন্ধ্যা। টার দিকে সদর উপজেলার চন্দ্রগঞ্জ ইউনিয়নের লতিফপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন- মোঃ কামরুল ইসলাম, রায়হান পারভেজ অন্তর এবং মোঃ রাকিব হোসেন। তাদের মাথা ও মুখসহ শরীরের বিভিন্ন অংশে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তাদের সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, কাফিলউদ্দিন বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের সভাপতি এম মাসুদ এবং প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি ওমর ফারুক আরজু স্থানীয় আধিপত্য নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে লগার মতো ছিলেন। দুজনই চন্দ্রগঞ্জ থানা ছাত্রলীগের সাবেক আহ্বায়ক কাজী বাবলুর অনুসারী।

বুধবার সন্ধ্যায় মাসুদ ও আরজুর অনুসারীদের মধ্যে চন্দ্রগঞ্জ নিউ মার্কেটের সামনে লড়াই হয়। পরে ছাত্রলীগের প্রাক্তন নেতা কাজী বাবলু তাদের মধ্যে সমঝোতায় পৌঁছে যান।

তবে লতিফপুর এলাকায় রাতে ছাত্রলীগ নেতা এম মাসুদ, হৃদয় পাটোয়ারী ও মাসুদের অনুসারী এম সজিবসহ কয়েকজন সহযোগী তিনজনকে মারধর করে এলোপাতাড়ি আহত করে।

ছাত্রলীগের প্রাক্তন নেতা কাজী মামুনুর রশিদ আহতদের দেখতে বাবলু সদর হাসপাতালে যান। তিনি বলেছিলেন যে নেতাকর্মীরা তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে লড়াইয়ে জড়িয়ে পড়ে। আমি ঘটনাটি সমাধান করার চেষ্টা করছি।

জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জিয়াউল করিম নিশান বলেন, কেউ আমাকে এ ঘটনার কথা জানাননি। এটি জানতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

এ বিষয়ে চন্দ্রগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জসিম উদ্দিন বলেন, ছাত্রলীগের দুটি গ্রুপের লড়াইয়ের কথা শুনেছি। লিখিত অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

কাজল কায়েস / বিএ

করোনার ভাইরাস আমাদের জীবন বদলে দিয়েছে। সময় আনন্দ এবং দুঃখে, সঙ্কটে, উদ্বেগে কাটায়। আপনি কিভাবে আপনার সময় কাটাচ্ছেন? জাগো নিউজে লিখতে পারেন। আজ পাঠান – [email protected]