কমলাপুর স্টেশন পরিদর্শনে রেলমন্ত্রী

রেল- (4) .jpg

মহামারী করোনভাইরাস পরিস্থিতিতে, আরও 13 জোড়া ট্রেন অস্থায়ী বিরতি দিয়ে চলতে শুরু করে। এই ১৩ জোড়া যাত্রী ট্রেন রবিবার (১৮ আগস্ট) সকাল থেকে Dhakaাকার অভ্যন্তরে ও বাইরে বিভিন্ন রুটে চলা শুরু করেছে। রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন কমলাপুর স্টেশন পরিদর্শন করেছেন ট্রেনটির সার্বিক কার্যক্রম সম্পর্কে জানতে।

সকাল সাড়ে দশটার দিকে তিনি কমলাপুর স্টেশনে পৌঁছান। এ সময় তিনি কমলাপুর রেলস্টেশনের ৩ নং প্ল্যাটফর্মে দাঁড়িয়ে Dhakaাকা-কিশোরগঞ্জ-Dhakaাকা রুটে চলা কিশোরগঞ্জ এক্সপ্রেস ট্রেনের যাত্রীদের সাথে কথা বলেন এবং সামগ্রিক যাত্রা সম্পর্কে খোঁজখবর নেন। তিনি স্টেশনের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে সব ধরণের স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করতে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণের নির্দেশনা দিয়েছিলেন।

করোনার পরিস্থিতির কারণে 24 মার্চ থেকে যাত্রী ট্রেনগুলি বন্ধ রয়েছে been তখন কিছু মালবাহী ট্রেন চলাচল করছিল। ৩১ শে মে, প্রথম পর্যায়ে আট জোড়া আন্তঃনগর ট্রেন চালু করা হয়েছিল। ৩ রা জুন দ্বিতীয় পর্যায়ে আরও ১১ টি আন্তঃনগর ট্রেন যুক্ত করা হয়েছে। তবে কিছুক্ষণ পরে যাত্রী সংকটের কারণে দুই জোড়া ট্রেন চলাচল বন্ধ করে দেয়।

এরপরে আজ, রবিবার থেকে আরও 12 টি আন্তঃনগর এবং এক জোড়া যাত্রী ট্রেন সহ মোট 13 জোড়া ট্রেন চলাচল শুরু করেছে। রেলপথ পর্যায়ক্রমে সমস্ত রুটের আন্তঃনগর ট্রেন চালু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

সম্প্রতি, বাংলাদেশ রেলওয়ের উপ-পরিচালক (টিটি) খায়রুল কবির স্বাক্ষরিত একটি অফিস আদেশে ১৮ ই আগস্ট থেকে ১৩ টি ট্রেন চলাচল শুরু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

রেল- (4) .jpg

এই ১৩ জোড়া যাত্রী ট্রেন রবিবার (১৮ আগস্ট) সকাল থেকে Dhakaাকার অভ্যন্তরে ও বাইরে বিভিন্ন রুটে চলা শুরু করেছে।

এদিকে রেল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে যে আন্তঃনগর ট্রেনের টিকিট আগের মতো অনলাইনে এবং মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে বিক্রি করা হবে। আন্তঃনগর ট্রেনের অগ্রিম টিকিট প্রস্থানের দিন সহ পাঁচ দিন আগে জারি করা যেতে পারে। যাত্রীদের সামাজিক ও শারীরিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে কোচের সামর্থ্যের ৫০ শতাংশ টিকিট বিক্রি হবে। আন্তঃনগর ট্রেনগুলিতে সব ধরণের স্থায়ী টিকিট বন্ধ থাকবে।

বাংলাদেশ রেলওয়ে সূত্রে খবর, বর্তমানে মোট ১ 16 জোড়া ট্রেন চলছে। আজ রেলের বহরে আরও 13 জোড়া ট্রেন যুক্ত করা হয়েছে। সব মিলিয়ে এখন চলমান ট্রেনের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে 30 জোড়া।

রেল- (4) .jpg

১৩ টি ট্রেনের মধ্যে রয়েছে রাজশাহী-Dhakaাকা-রাজশাহী রুটে পদ্মা এক্সপ্রেস, Dhakaাকা-সিলেট-সিলেট রুটে পারাবত এক্সপ্রেস, Howাকা-মোহনগঞ্জ-Dhakaাকা রুটে হাওড়া এক্সপ্রেস, Dhakaাকা-তারাকান্দি-Dhakaাকা রুটে অগ্নিবিনা এক্সপ্রেস, রাজশাহীর রাজশাহী -রাজশাহী এক্সপ্রেস-রাজশাহী এক্সপ্রেস-রাজশাহী, চট্টগ্রাম-Dhakaাকা-চট্টগ্রাম রুটে মহানগর এক্সপ্রেস, পঞ্চগড়-Dhakaাকা-পঞ্চগড় রুটে একতা এক্সপ্রেস, খুলনা-Dhakaাকা-খুলনা রুটে সুন্দরবন এক্সপ্রেস, চট্টগ্রাম-ময়মনসিংহ-চট্টগ্রাম রুটে বিজয় এক্সপ্রেস, উপকূলীয় Expressাকা-নোয়াখালী-Dhakaাকা রুটে এক্সপ্রেস, খুলনা রুটে খুলনা-এক্সপ্রেস বর্ডার এক্সপ্রেস, গোবড়া-রাজশাহী-গোবড়া রুটে টঙ্গীপাড়া এক্সপ্রেস। এ ছাড়া জামালপুর যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচল করবে Dhakaাকা-দেওয়ানগঞ্জ বাজার-Dhakaাকা রুটে।

এএস / এসআর / এমএস