কমলা হ্যারিসের বিজয় কামনায় ভারতে পূজা

jagonews24

ভারতীয় ও কালো বংশোদ্ভূত কমলা হ্যারিস মার্কিন নির্বাচনে প্রথমবারের মতো সহসভাপতি পদে প্রার্থী হচ্ছেন। দক্ষিণ ভারতের তামিলনাড়ু রাজ্যের থুলসেন্দ্রপুরম গ্রামের লোকেরা ডেমোক্র্যাটিক প্রার্থীর বিজয়ের জন্য বিশেষ প্রার্থনা ও উপাসনা করেছে। কমলা হ্যারিসের মা তামিলনাড়ুতে জন্মগ্রহণ করেছিলেন।

বিবিসির একটি অনলাইন প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মঙ্গলবার মার্কিন রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের ভোটগ্রহণ চলছে। এদিন সকালে থুলসেন্দ্রপুরমের লোকেরা একটি মন্দিরে বিশেষ পূজা-প্রার্থনার মাধ্যমে কমলা হ্যারিসের বিজয়ের জন্য প্রার্থনা করেছিলেন। কমলার মায়ের বাড়ির স্বজনরা সহ সাধারণ মানুষ এতে অংশ নিয়েছিল।

গত দুই মাস ধরে, এই গ্রামের 5000,000 বাসিন্দা মার্কিন রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের আপডেট হওয়া সংবাদের খোঁজ করছেন। কারণ, কমলা হ্যারিসের মায়ের বাড়ি সেই গ্রামেই। কমলা যখন পাঁচ বছর বয়সে একবার তামিলনাড়ুর সেই গ্রামে এসেছিলেন। ক্যালিফোর্নিয়ার সিনেটর কমলা তখন মন্দিরে যান।

মন্দিরের গেটে কমলার ছবি ঝুলিয়ে তাকে অভ্যর্থনা জানানো হয়েছে। সোমবার সকালে, থুলসেন্দ্রপুরামের ধর্মশাস্ত নামক মন্দিরে কমলার বিজয়ের জন্য বিশেষ প্রার্থনায় অংশ নিয়েছিলেন অর্ধ শতাধিক মানুষ। প্রতিমাতে দুধ toালাওয়ের পাশাপাশি প্রার্থনা সংগীত গাওয়া হয়। দেশি-বিদেশি সাংবাদিকরাও সেখানে উপস্থিত ছিলেন।

যাইহোক, কমলার মায়ের পরিবার এই গ্রাম ছেড়ে রাজ্যের রাজধানী চেন্নাই এবং তারপরে যুক্তরাষ্ট্রে বসতি স্থাপন করেছিল। তবে তাঁর পরিবার মন্দিরে অনুদান দিয়ে চলেছে। স্থানীয় বাসিন্দা আরআর জয়কুমার ভান্ডায়ার বলেছিলেন, ‘তিনি (কমলা) এখানকার লোক। আমরা তার জন্য গর্বিত। “

এই বছরের মার্কিন নির্বাচনে ডেমোক্র্যাট মনোনীত প্রার্থী জো বিডেন এবং ভাইস প্রেসিডেন্টের প্রার্থী কমলা হ্যারিস বর্তমান রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং সহ-রাষ্ট্রপতি মাইক পেন্সের প্রতিদ্বন্দ্বী। কমলা এখন ক্যালিফোর্নিয়া থেকে মার্কিন সেনেটের নির্বাচিত সদস্য। এর আগে তিনি রাজ্যের অ্যাটর্নি জেনারেল হিসাবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন।

এসএ / এমকেএইচ

করোনার ভাইরাস আমাদের জীবন বদলে দিয়েছে। আনন্দ, বেদনা, সংকট, উদ্বেগ নিয়ে সময় কাটায়। আপনি কিভাবে আপনার সময় কাটাচ্ছেন? জাগো নিউজে লিখতে পারেন। আজ পাঠান – [email protected]