কিস্তি তুলতে যাওয়া এনজিও কর্মকর্তাকে গলা কেটে হত্যা

jagonews24

নারায়ণগঞ্জ সোনারগাঁ উপজেলায় অস্ত্র theণের কিস্তি আদায় করতে। সাজিদুর রহমান নামে এক এনজিও কর্মকর্তা নিহত হয়েছেন। পুলিশ দাবি করেছে তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে। ঘটনার পরে বাড়ির লোকজন পালিয়ে যায়। এই ঘটনার পর এলাকায় কৌতূহলী ব্যক্তিরা ভিড় করছেন।

রবিবার (২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে উপজেলার বরদী ইউনিয়নের মিস্ত্রিপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এদিকে সোনারগাঁও পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে এবং ক্রাইম সিনের সদস্যরা লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেছেন।

নিহত সাজিদুর রহমান টাঙ্গাইল সদর উপজেলার মিরপুর গ্রামের মৃত আব্দুস সাত্তার ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার বরদী ইউনিয়নের মিস্ত্রিপাড়া এলাকার শামসুদ্দিনের ছেলে হান্নানের স্ত্রী শারমিন আক্তার বার্ডি শাখা নামে একটি এনজিও ব্যুরো বাংলাদেশ থেকে ৫০,০০০ টাকা tookণ নিয়েছিলেন। এ থেকে শারমিন আক্তার প্রতি সপ্তাহে ১,২৫০ টাকা aidণ পরিশোধ করেছিলেন। এছাড়া ওই বাড়িতে আরও কয়েকজন গ্রাহক রয়েছেন।

রবিবার বিকেলে কিস্তি সংগ্রহ করতে ব্যুরো বাংলাদেশ এনজিও প্রোগ্রাম আয়োজক মো। সাজিদুর রহমান হান্নানের বাড়িতে গেলেন। পরে স্থানীয়রা তার বাড়িতে হান্নানের কাঁচা লাশ দেখে পুলিশে খবর দেয়।

ব্যুরো বাংলাদেশের বারদী শাখার হিসাবরক্ষক মামুন অর রশিদ জানান, সাজিদুর রহমান দুপুর বারোটার দিকে একটি কেন্দ্র থেকে অর্থ প্রত্যাহার করে অফিসে জমা দেন এবং কেন্দ্র থেকে অর্থ সংগ্রহ করতে যান। এখানে তাকে খুন করা হয়েছিল। গ্রাহকরা নিয়মিত কিস্তি দিচ্ছেন। আমি এই ধরনের হত্যার কারণ অনুসন্ধানের দাবি করছি।

সোনারগাঁও থানার ওসি মো। রফিকুল ইসলাম জানান, তদন্ত ব্যতিরেকে খুনের কারণ জানা যায়নি। অপরাধের ঘটনাস্থলের সদস্যদের অবহিত করার পরে তারা বিকেলে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করে। মামলাটি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

শাহাদাত হোসেন / এমএএস / এমকেএইচ