চাঁদপুর জেনারেল হাসপাতালের সামনে ছোট যানবাহনের জট, ভোগান্তি

jagonews24

চাঁদপুর সরকারী জেনারেল হাসপাতালের মূল ফটকে দারোয়ান না থাকায় রোগী ও তাদের স্বজনদের ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। বিশেষত দিনের বেলা প্রবেশপথে ট্র্যাফিক জ্যাম থাকায় হাসপাতালে আসা-যাওয়া করা কঠিন হয়ে পড়ে। হাসপাতালের সীমানা প্রাচীরের কাছেও কমপক্ষে এক ডজন অ্যাম্বুলেন্স পার্ক করা আছে।

গেটম্যান বা দারোয়ান না থাকায় সদর হাসপাতালের প্রবেশ পথে অটো এবং সিএনজির ভিড় সবসময় লক্ষ্য করা গেছে। অনেক সময় তাদের স্ট্যান্ডের মতো সারি সারি গাড়ি পার্ক করতেও দেখা যায়। জরুরী অবস্থার মধ্যে রোগীকে হাসপাতালে বা বাইরে আনতে এটির জন্য প্রচুর গতি প্রয়োজন। যেহেতু কোনও দারোয়ান নেই তাই সাধারণ মানুষ যথারীতি হাসপাতালে প্রবেশ করছেন। এতে ভর্তি রোগীদের চিকিৎসা সেবা সরবরাহ ব্যাহত হচ্ছে।

শনিবার (১৮ অক্টোবর) বেশ কয়েকটি রিকশা, ইজিবাইক এবং সিএনজি যাত্রীদের হাসপাতালের মূল ফটক বন্ধ করতে দেখা যায়। এ সময় বাড়িতে প্রবেশের সময় দু’জন মোটরসাইকেল চালক বাধা দেয় এবং তাদের মধ্যে কয়েকজন একে অপরের সাথে তর্ক করতে দেখা যায়। তর্কের এক পর্যায়ে, জায়গাটি কয়েক মিনিটের জন্য খালি ছিল, তবে 10 মিনিটের মধ্যে এটি পূর্বের অবস্থায় ফিরে আসে।

চালকদের হাসপাতালের ইয়ার্ডে ইজিবাইক এবং সিএনজি পার্ক করে যাত্রীদের সন্ধান করতে দেখা গেছে। মূলত কোনও দারোয়ান নেই তাই তারা অনায়াসেই প্রবেশ করছে। এটি হাসপাতালের পরিবেশ নষ্ট করছে। বাচ্চাদের খেলনা এবং প্লাস্টিকের জিনিস বিক্রি করা একটি ভ্যানটিও উঠোনে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেল।

কয়েকজন স্থানীয় লোকের সাথে কথা বলে জানা গেছে যে মাঝে মধ্যে একজনকে অল্প সময়ের জন্য ফটকটিতে দেখা যায়। আধ ঘন্টা বা এক ঘন্টার জন্য ডিউটিতে যান। তারপরে জায়গাটি তার আগের অবস্থায় ফিরে যায়।

jagonews24

চাঁদপুর সরকারী জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক হাবিব-উল-করিম বলেছেন, আমি নিজেও বেশ কয়েকবার এই সমস্যার মুখোমুখি হয়েছি। এটি একটি বেদনাদায়ক জিনিস। বর্তমানে আউটসোর্সিং থেকে গেটকিপারের দায়িত্ব পালন করছেন।

তিনি বলেন, আমাদের আনসার নিয়োগ প্রক্রিয়া চলছে। আনসার নিয়োগ প্রক্রিয়া শেষ হলে হাসপাতালের পরিবেশ আরও নিয়ন্ত্রিত হবে।

এসআর / জেআইএম

করোনার ভাইরাস আমাদের জীবন বদলে দিয়েছে। সময় আনন্দ এবং দুঃখে, সঙ্কটে, উদ্বেগে কাটায়। আপনি কিভাবে আপনার সময় কাটাচ্ছেন? জাগো নিউজে লিখতে পারেন। আজ পাঠান – [email protected]