জয়পুরহাটে তরুণীর পর যুবকের করোনা শনাক্ত

জয়পুরহাটে তরুণীর পর যুবকের করোনা শনাক্ত

জয়পুরহাটের আক্কেলপুর উপজেলার তিলকপুর বিষ্ণপুর গ্রাম থেকে 24াকায় ফেরা চব্বিশ বছরের এক যুবকের মৃতদেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত করা হয়েছে। তিনি পেশায় একটি ফার্মাসিউটিক্যাল সংস্থার প্রতিনিধি।

যদিও শনিবার রাতে রাজশাহী মেডিকেল কলেজের পরীক্ষাগার থেকে ২২ জনের নমুনা পরীক্ষা নেতিবাচক ছিল, তবুও এই যুবকের রিপোর্ট করোনার পরিচয় নিশ্চিত করেছে। সেলিম মিয়া।

তিলকপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সেলিম মাহমুদ সজল জানান, পড়াশোনা শেষ করে যুবক Dhakaাকায় চলে গেছে। তিনি সেখানে একটি ওষুধ সংস্থার প্রতিনিধি হিসাবে কাজ করতেন এবং মিরপুর -১ এ থাকতেন। কিছুদিন আগে তিনি বাড়িতে এসেছিলেন। তার পর থেকে তিনি প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারান্টিনে রয়েছেন।

আক্কেলপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাকিউল ইসলাম জানান, ভুক্তভোগী সাত দিন আগে Dhakaাকা থেকে নিজ গ্রামে এসেছিল। তার পর থেকে তিনি হোম কোয়ারান্টিনে রয়েছেন। ক্ষতিগ্রস্থদের আশেপাশের দুটি বাড়ির সদস্যদের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারান্টাইন থাকতে বাধ্য করা হয়েছে। করোনাকে চিহ্নিত করার পরে তাকে গোপীনাথপুর স্বাস্থ্য প্রযুক্তি ইনস্টিটিউটের বিচ্ছিন্ন ওয়ার্ডে রাখা হয়েছিল।

জয়পুরহাট সিভিল সার্জন ডা। সেলিম মিয়া জানান, শনিবার বিকেলে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজের পরীক্ষাগার পরীক্ষায় ৩ 36 জনের নমুনা নেতিবাচক হওয়া সত্ত্বেও গাজীপুরে ফিরে আসা ২০ বছর বয়সী পোশাক শ্রমিকের দেহে করোনভাইরাসটি পাওয়া গেছে। অন্যদিকে, একই রাতে রাজশাহী মেডিকেল কলেজের পরীক্ষাগারে ২২ জনের পরীক্ষায় ২১ জনের নমুনা নেতিবাচক হলেও wereাকায় ফিরে আসা এক যুবকের শরীরে করোন ভাইরাস সনাক্ত করা হয়েছিল। পরে তাকে আক্কেলপুর উপজেলার গোপীনাথপুর স্বাস্থ্য প্রযুক্তি ইনস্টিটিউটের বিচ্ছিন্ন অবস্থায় রাখা হয়।

এর আগে, কালাই উপজেলার জিন্দারপুর গ্রামে প্রথম দুজন এবং পাঁচবিবি উপজেলার ছোট মানিকগ্রামে প্রথম দুজন এবং পূর্বকরিয়ায় দুজন এবং গাজীপুরে ফিরে আসা ২০ বছর বয়সী পোশাক শ্রমিককে করোনার পরিচয় দেওয়া হয়েছিল। জেলায় মোট people জন ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। এর আগে পাঁচটি সংক্রামিত ব্যক্তিকেও বিচ্ছিন্ন করে রাখা হয়েছে এবং তাদের মধ্যে চারজন পুরনো করোনারি রোগী।

রাশেদুজ্জামান / এমএএস / এমএসএইচ

Leave a Reply