টাঙ্গুয়ার হাওরে আমরা ইঞ্জিন চালিত নৌকা বন্ধ করে দেব

jagonews24

পানিসম্পদ মন্ত্রকের সিনিয়র সচিব কবির বিন আনোয়ার বলেছেন, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে সমতল অঞ্চলে বসবাসকারী ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর জীবনযাত্রার মান উন্নয়নের একটি কর্মসূচি রয়েছে। তাহিরপুর উপজেলার পর্যটন এলাকার উন্নয়নে কিছু পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। পুরুষ ও মহিলাদের জন্য আলাদা টয়লেট এবং খাবারের জন্য রেস্তোঁরা থাকবে।

তিনি বলেছিলেন যে মানুষ যাতে প্লাস্টিকের বোতল এবং চিপের প্যাকেট নিয়ে হাওরে প্রবেশ করতে না পারে সেজন্য এগুলি তৈরি করা হবে। পাশাপাশি, আমরা টাঙ্গুয়ার হাওরে ইঞ্জিনচালিত নৌকা থামাব। সেখানে আপনি প্রচুর টানা নৌকা ব্যবহার করবেন এবং এগুলি পর্যটকরা ব্যবহার করবেন। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে এ জাতীয় বিশেষ নৌকা তৈরির প্রকল্পও নেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার বিকেলে সুনামগঞ্জের itতিহ্য জাদুঘর চত্বরে দুটি গাছের চারা রোপণ ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ শেষে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, আকারের দিক থেকে বিশাল হাওর অঞ্চল সুনামগঞ্জ জেলাকেও গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে এবং হাওর অঞ্চলের সমস্যা সম্পূর্ণরূপে সমাধানের জন্য একটি প্রকল্প পাস করা হয়েছে। এছাড়াও সরকার হাওর অঞ্চলের উন্নয়নে কাজ করছে এবং ভবিষ্যতে আরও প্রকল্প গ্রহণ করা হবে।

সুনামগঞ্জের পর্যটন এলাকার উন্নয়নের বিষয়ে কবির বিন আনোয়ার বলেন, সুনামগঞ্জের জন্য একটি প্রকল্প দুই সপ্তাহ আগে পাস হয়েছে। নগর সুরক্ষা বাঁধসহ বিভিন্ন প্রকল্প নিয়ে কথা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত ডেল্টা প্ল্যান হাওর অঞ্চলকে আলাদা হটস্পট হিসাবে বিবেচনা করেছে।

এ সময় সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আবদুল আহাদ উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মো। শরিফুল ইসলাম, জেলা পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো। সাবিবুর রহমান, সুনামগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইয়াসমিন নাহার রুমা প্রমুখ।

মোসাইদ রাহাত / এমএএস / এমকেএইচ