টিকাটুলিতে বিপুল পরিমাণ বিস্ফোরক পণ্য জব্দ : গ্রেফতার ৩

গ্রেফতারের-2

রাজধানীর ওয়ারী থানার অন্তর্গত টিকাটুলি এলাকার একটি আবাসিক ভবনে অভিযান চালিয়ে বিস্ফোরক তৈরিতে ব্যবহৃত বিপুল পরিমাণ রাসায়নিক, উচ্চ ক্ষমতাযুক্ত দাহ্য পদার্থ এবং বিভিন্ন বিপজ্জনক পদার্থ জব্দ করেছে র‌্যাব।

বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ কর্পোরেশনের সহযোগিতায় র‌্যাব -৩ এর একটি দল ওয়ারী থানার অন্তর্গত হাটখোলা রোডের আবাসিক ভবনের (২ 26 রাসেল সেন্টার) নিচতলায় অভিযান পরিচালনা করেছে।

অভিযানের সময় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন র‌্যাব -৩ এর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পলাশ কুমার বসু।

র‌্যাব -৩ সূত্রে জানা গেছে, হাটখোলা রোডের নিচ তলায় ইয়াসিন সায়েন্টিফিক স্টোর এবং যমুনা বৈজ্ঞানিক স্টোর, একটি আবাসিক বিল্ডিং (২৮ রাসেল সেন্টার) এ প্রচুর পরিমাণে লাইসেন্সবিহীন রাসায়নিক, উচ্চ-ক্ষমতা দহনযোগ্য পদার্থ এবং একটি বিশেষ পদার্থ রয়েছে টলিউইন বিস্ফোরক তৈরিতে ব্যবহৃত হত। সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব -৩ এর একটি দল সোমবার (১ 17 আগস্ট) দুপুর ১২ টা থেকে রাজধানীর ওয়ারী থানাধীন টিকাটুলি এলাকায় বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে। অ্যাসিড, শুকনো মিথাইল সালডো, মিথেনল এবং টলিউইনকে আটকায়।

গ্রেফতারের -3

আবদুস সালাম (62২), ইয়াসিন সায়েন্টিফিক স্টোরের মালিক, নুর হোসেন (65৫), ম্যানেজার ও শাহীন (৩২) আটক হয়েছেন।

র‌্যাব -৩ এর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পলাশ কুমার বসুর উপস্থিতিতে বিসিআইসি ও মাদকদ্রব্য কর্মকর্তাদের সামনে জিজ্ঞাসাবাদ চলাকালীন তারা জানান, আটককৃতরা দীর্ঘদিন ধরে লাইসেন্স ছাড়াই বিস্ফোরক তৈরিতে ব্যবহৃত এই বিপজ্জনক রাসায়নিক, দাহ্য এবং বিভিন্ন বিপজ্জনক পদার্থ সংরক্ষণ করে আসছিল।

গ্রেফতারের -3

র‌্যাব -৩ এর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পলাশ কুমার বোস বলেছেন, সমস্ত পদার্থ অত্যন্ত বিপজ্জনক, যে কোনও মুহূর্তে আবাসিক এলাকায় যে কোনও দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। এর ফলে জীবন ও সম্পত্তির ব্যাপক ক্ষতি হতে পারে। নিয়মিত মামলার মাধ্যমে গ্রেপ্তারকৃতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

জেইউ / এএইচ / পিআর