নরসিংদীতে সিএনজি চালককে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

নরসিংদীতে সিএনজি চালককে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

নরসিংদীর পলাশ উপজেলার ঘোড়াশাল পুলিশ ফাঁড়ির সদস্যদের বিরুদ্ধে মান্নান নামের সিএনজি চালককে মারধর করার অভিযোগ উঠেছে। তবে পুলিশ বলেছে যে কার্ডিয়াক অ্যারেস্টের কারণে সিএনজি চালকের মৃত্যু হয়েছিল। মঙ্গলবার (২ 26 এপ্রিল) সন্ধ্যায় নিহতের স্বজন এবং স্থানীয়রা রাস্তা অবরোধ করে।

নিহতের নাম মান্নান উপজেলার অন্তর্গত টাঙ্গাই গ্রামের নেহাবো।

নিহত মান্নানের ছোট ভাই মিলন অভিযোগ করেছেন, মান্নান তার সিএনজি নিয়ে মঙ্গলবার বিকেলে কালীগঞ্জ থেকে ফিরছিলেন। তিনি ঘোড়াশাল ব্রিজ এলাকার নরসিংদী সীমান্তে পৌঁছলে ঘোড়াশাল ফাঁড়ির দুই পুলিশ সদস্য তার সিএনজি থামিয়ে মারধর করেন। কিছুক্ষণ পর আমরা ঘোড়াশাল ফাঁড়িতে গিয়ে দেখি মান্নানের নিথর দেহটি পড়ে আছে। পরে তাকে ঘোড়াশালের রোশন জেনারেল হাসপাতালে এবং পরে নরসিংদী সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এদিকে, খবরটি ছড়িয়ে পড়লে নিহতের স্বজন ও স্থানীয়রা সন্ধ্যায় টঙ্গী-পাঁচডোনা সড়কের ভাটপাড়া এলাকা অবরোধ করে। খবর পেয়ে জেলা পুলিশ সদস্যরা ঘটনাস্থলে ছুটে এসে তাদের ছত্রভঙ্গ করে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করেন। সুষ্ঠু বিচারের আশ্বাস দেওয়ার পরে তারা ফিরে এসেছিল।

নরসিংদী সহকারী পুলিশ সুপার শাহেদ আহমেদ জানান, মান্নান একজন হার্টের রোগী। লকডাউনে সিএনজি ব্যবহার করে পুলিশকে এড়িয়ে তিনি কালীগঞ্জে গিয়েছিলেন। পুলিশ এসে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে তিনি এক পর্যায়ে অসুস্থ হয়ে পড়েন। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় এবং আহত অবস্থায় তিনি মারা যান।

সঞ্জিত সাহা / আরএআর / পিআর

Leave a Reply