নারিকেল গাছের মাথায় উঠে মারা গেলেন কৃষক

আব-মৃত্যু

রহমত গাজী (Rah৫) নামে এক কৃষকের লাশ যশোরের অভয়নগরে একটি নারকেল গাছের মাথা থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। বুধবার (২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে উপজেলার ভাঙ্গাগেট লক্ষ্মীপুর গ্রামে নিজ বাড়িতে একটি নারকেল গাছ থেকে তার লাশ উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিস।

রহমত গাজী লক্ষ্মীপুর গ্রামের মৃত তোরাপ গাজীর ছেলে। তিনি কৃষিকাজের পাশাপাশি নারকেল গ্রোভেও কাজ করেছিলেন।

স্থানীয়দের বক্তব্য, রহমত গাজী দুপুরে প্রায় 60০ ফুট উঁচু একটি নারকেল গাছে অজ্ঞান হয়ে বসে ছিলেন। গাছের আশেপাশে কয়েকশ গ্রামবাসী চিৎকার করে রহমত গাজীকে ডাকছিলেন কিন্তু তিনি কোনও উত্তর দিচ্ছেন না।

রহমত গাজীর স্ত্রী রিজিয়া বেগম জানান, দুপুর বারোটার দিকে তার স্বামী বাড়ির সামনে একটি নারকেল গাছে উঠেছিলেন। গাছের চূড়ায় ওঠার পরে তিনি দুটি নারকেল বাদ দিলেন। প্রায় আধা ঘন্টা পরে তিনি তার স্বামীকে একটি গাছে বসে থাকতে দেখেন। অনেক কল করা সত্ত্বেও, তিনি কোনও সাড়া না পেয়ে প্রতিবেশীদের জানিয়েছিলেন।

খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের একটি দল ঘটনাস্থলে পৌঁছে উদ্ধার কাজ শুরু করে। প্রায় 40 মিনিট চেষ্টা করার পরে, তারা গাছের উপর থেকে বৃদ্ধটিকে উদ্ধার করতে এবং তাকে নামাতে সক্ষম হয়।

উদ্ধারকারী দলের নেতৃত্বদানকারী নওয়াপাড়া ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের স্টেশন অফিসার খান এহসান-উল-আলম বলেছেন, “খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে পৌঁছেছি।” দলের সদস্যদের সহায়তায় বৃদ্ধাকে প্রায় ৮০ ফুট উঁচু নারকেল গাছের মাথা থেকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রেরণ করা হয়েছে।

অভয়নগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক হাফিজা নার্গিস জানান, নারকেল গাছ থেকে উদ্ধার করা ব্যক্তি হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। হাসপাতালে পৌঁছানোর আগেই তিনি মারা যান।

মিলন রহমান / আরএআর / জেআইএম