মাস্ক পরে হাত ধুয়ে পর্যটনকেন্দ্রে আসছেন পর্যটকরা

পর্যটক -২

বান্দরবান জেলা প্রশাসন পর্যটন কেন্দ্রটি আবার চালু করেছে যা করোনার প্রাদুর্ভাবের কারণে বন্ধ ছিল। পর্যটকরা একে একে মুখোশ পরা প্রবেশ করছেন, সাবান দিয়ে হাত ধুয়ে টিকিট কিনছেন।

শুক্রবার সকালে সরেজমিনে দেখা গেছে, সকাল থেকেই বান্দরবানের নীলাচলে পর্যটকরা আসতে শুরু করেছেন। পর্যটকরা একে একে মুখোশ পরা প্রবেশ করছেন, সাবান দিয়ে হাত ধুয়ে টিকিট কিনছেন। যদিও ছুটি ছিল, সকালে পর্যটকদের তেমন ভিড় ছিল না। বহু পর্যটক পরিবার ও বন্ধুবান্ধব নিয়ে পর্যটন কেন্দ্রে এসেছেন। কেউ তাদের ক্যামেরায় ল্যান্ডস্কেপ ক্যাপচার করছে। কেউ দুলছে।

নীলাচল পর্যটন কেন্দ্রের টিকিট সংগ্রাহক দিলীপ বড়ুয়া জানান, সকাল থেকেই 70০ টিকিট বিক্রি হয়েছে। অনেকে মুখোশ পরে পর্যটন কেন্দ্রে প্রবেশ করছেন। বিকেল থেকেই পর্যটকদের একটু ভিড় দেখা যায়।

লকডাউনের পরে Mirাকার মিরপুরের এক পর্যটক শাহনাজ আক্তার বলেছেন, করোনার তালাবদ্ধ হওয়ার পরে সরকার দেশের পর্যটনকেন্দ্রগুলি আবার চালু করেছে। আমি এখানে প্রথম এসেছি। দেশে এমন একটি জায়গা রয়েছে যা প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে ভরপুর।

Dhakaাকার আরেক পর্যটক শাহাদাত হোসেন বলেন, আমি করোনার Dhakaাকায় শ্বাসরুদ্ধকর অবস্থায় ছিলাম। এখানে এসে আমি স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলছি। প্রচুর সুন্দর জায়গা।

পর্যটক -২

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক শামীম হোসেন জানান, আজ সকাল থেকেই পর্যটন কেন্দ্র এবং হোটেল মোটেল চালু করা হয়েছে। স্বাস্থ্যকর নিয়ম অনুসরণ করে পর্যটকদের প্রবেশ করতে হবে পর্যটন কেন্দ্রে।

করোনার প্রতিরোধে জেলা প্রশাসন 16 মার্চ থেকে জেলার সমস্ত পর্যটন কেন্দ্র অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ করে দিয়েছে। জেলার 60 টি হোটেল এবং মোটেল রয়েছে।

সৈকত দাস / এফএ / পিআর