মা ইলিশ রক্ষায় সারাদেশে কোস্টগার্ডের অভিযান শুরু

উপকূল -১

মা ইলিশ রক্ষায় দেশব্যাপী অভিযান শুরু করেছে বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড। আইন অনুযায়ী প্রজনন মৌসুমে ইলিশ কাটা বন্ধ হওয়া নিশ্চিত করার জন্য সচেতনতার পাশাপাশি আইন প্রয়োগের জন্য কাজ করছে এই বাহিনী।

বুধবার (১৪ অক্টোবর) সকালে কোস্টগার্ডের Dhakaাকা জোনাল টিম রাজধানীর সোরিঘাট মাছের বাজার এবং এর সংলগ্ন বিভিন্ন নদী এলাকায় সচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করে। এ ছাড়া ইলিশ মাছের প্রজনন ক্ষেত্রের জন্য সারা দেশে বিভিন্ন নদীতে একযোগে কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে।

কোস্টগার্ডের Dhakaাকা জোন কমান্ডার এটিএম রেজাউল হাসান বলেছেন, আজ থেকে ৪ নভেম্বর অবধি দেশজুড়ে মোট ২২ দিনের জন্য ইলিশ সংগ্রহ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এ সময় জেলেদের মধ্যে সচেতনতা বাড়াতে কোস্টগার্ড বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা করবে। এছাড়াও মাছের খামারে সচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালিত হবে। কারণ ব্যবসায়ীরা মাছ না কিনলে মাছের সরবরাহ বন্ধ হয়ে যাবে। জেলেরা মাছ ধরতে আগ্রহী হবে না।

এসময় বিভিন্ন নদী অঞ্চলে কোস্টগার্ডের বিশেষ টহল পরিচালিত হবে। আইনটি লঙ্ঘন করে যারা ইলিশ ধরেছে, ব্যবসা করেছে বা পরিবহন করেছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

মৎস্য বিভাগ Dhakaাকা বিভাগের উপ-পরিচালক সৈয়দ মো। আলমগীর বলেন, ইলিশ ধরা, ব্যবসা ও পরিবহন ৪ নভেম্বর অবধি বন্ধ থাকবে যদিও এই সময়ে কারও দখলে ইলিশ পাওয়া গেলেও তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এই আইন লঙ্ঘনকারীদের 1-2 বছরের কারাদণ্ড বা 5000 টাকা জরিমানা বা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত করা হবে।

তিনি আরও বলেছিলেন, সরকারের কর্মসূচির আওতায় যে সকল জেলে এখন পর্যন্ত মাছ ধরা থেকে বিরত থাকে তাদের প্রত্যেককে ২০ কেজি চাল দেওয়া হবে।

উপকূল -২

কোস্টগার্ড সদর দফতর জানিয়েছে, মা ইলিশকে বাঁচাতে কোস্টগার্ড কঠোর পরিশ্রম করছে। বাহিনীর দায়িত্বে এলাকায় জনসচেতনতা তৈরি করতে ইতোমধ্যে লিফলেট বিতরণ, পোস্টারিং ও মাইকিং সহ বিভিন্ন প্রচার শুরু করা হয়েছে। অভিযানটিকে সফল করতে কোস্টগার্ড স্বতন্ত্র ও যৌথভাবে বিভিন্ন অভিযান পরিচালনা করবে।

অভিযানের আওতায় ৫ টি কোস্টগার্ড ঘাঁটির সদস্য, ২৩ টি ছোট ও বড় জাহাজ এবং ৫৮ টি স্থায়ী এবং ৪ টি অস্থায়ী সৈন্যদল ১০০ টিরও বেশি নৌকায় নদীর উপর পূর্ণ-সময়ের টহল করবে।

জেইউ / এমএসএইচ / পিআর

করোনার ভাইরাস আমাদের জীবন বদলে দিয়েছে। আনন্দ, বেদনা, সংকট, উদ্বেগ নিয়ে সময় কাটায়। আপনি কিভাবে আপনার সময় কাটাচ্ছেন? জাগো নিউজে লিখতে পারেন। আজ পাঠান – [email protected]