মেয়াদ শেষ হলেই ট্রাম্পকে ছেড়ে যাবেন মেলানিয়া!

trump-1

ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে স্ত্রী মেলানিয়ার সম্পর্কটা ভালোবাসার কারণে নয়, বরং টিকে রয়েছে বিবাহপূর্ব চুক্তি আর প্রেসিডেন্টের ক্ষমতার দাপটেই। কয়েক মাসের মধ্যেই মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে ট্রাম্পের মেয়াদ শেষ হলে তার সঙ্গে বিবাহবিচ্ছেদ ঘটাবেন মেলানিয়া। সম্প্রতি এমনটাই দাবি করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্টের সাবেক এক সহযোগী।

সম্প্রতি ‘আনহিঙ্গড: অ্যান ইনসাইডারস অ্যাকাউন্ট অব দ্য ট্রাম্প হোয়াইট হাউস’ নামে একটি বই লিখেছেন ট্রাম্পের সাবেক রাজনৈতিক সহযোগী ওমারোসা এম নিউম্যান। সেখানে মার্কিন প্রেসিডেন্টের দাম্পত্য জীবন নিয়ে নানা চাঞ্চল্যকর তথ্য তুলে ধরেছেন তিনি।

নিউম্যানের দাবি, ট্রাম্পের দাম্পত্য জীবন মোটেও সুখকর নয়। সুযোগ পেলেই এই সম্পর্ক থেকে বেরিয়ে আসতে চান মেলানিয়া। কিন্তু ট্রাম্প ক্ষমতায় থাকাকালে বিচ্ছেদ ঘটালে চাইলে বড় বিপদে পড়তে পারেন তিনি। একারণে অপেক্ষা করছেন কবে প্রেসিডেন্ট পদে ট্রাম্পের মেয়াদ শেষ হবে। মেয়াদ শেষ হলেই সম্পর্কচ্ছেদে এক মুহূর্ত দেরি করবেন না বর্তমান ফার্স্ট লেডি।

ঠিক কীসের ভয় পাচ্ছেন মেলানিয়া, সেটিও উল্লেখ করা হয়েছে ওই বইতে। মেলানিয়ার জন্ম স্লোভেনিয়ায়। দীর্ঘদিন মডেলিংয়ের পর ২০০৫ সালে মার্কিন ধনকুবের ট্রাম্পকে বিয়ে করেন। পরের বছরই যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকত্ব পান তিনি। এর পেছনে যে ট্রাম্পের বড় অবদান রয়েছে তা বলাই বাহুল্য।

লেখকের দাবি, এখন বিবাহবিচ্ছেদ চাইলে ক্ষমতা ব্যবহার করে বিপদে ফেলতে পারেন ট্রাম্প, এমন বিশ্বাস থেকেই মেলানিয়া ধৈর্য ধরে রয়েছেন।

যদিও বিষয়টি উড়িয়ে দিয়েছেন মেলানিয়া ট্রাম্পের মুখপাত্র। এক বিবৃতিতে তিনি বলেছেন, নিউম্যান হোয়াইট হাউসের কর্মী থাকলেও ট্রাম্পের সঙ্গে তার খুব একটা সাক্ষাৎ হয়নি। ফলে নিজের বইতে তিনি ট্রাম্প দম্পতির ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে যা লিখেছেন তা আকাশকুসুম কল্পনা মাত্র।

সূত্র: ইন্ডিয়া টাইমস

কেএএ/পিআর

.