শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রধানদের কৃষকদের সহায়তার আহ্বান

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রধানদের কৃষকদের সহায়তার আহ্বান

মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক অধিদপ্তর চলতি মৌসুমে এই ইনস্টিটিউটের শিক্ষকদের কৃষকদের ধান কাটাতে সহায়তা করার জন্য অনুরোধ করেছে। মঙ্গলবার বিভাগের মহাপরিচালক মো। সৈয়দ মায়ে। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, কর্ণভাইরাস প্রাদুর্ভাবের বিশ্বব্যাপী মহামারীও এর প্রভাব ফেলেছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিভিন্ন ক্ষেত্রে সার্ভিকাল ভাইরাস সংক্রমণের বিরূপ প্রভাব বিবেচনায় নিয়ে আগামী পাঁচ বছরের জন্য বিশেষ পরিকল্পনা গ্রহণ করেছেন। একই সঙ্গে, তিনি জরুরি পরিস্থিতিতে প্রায় ৫ মিলিয়ন মানুষের জন্য খাদ্য সরবরাহের উদ্যোগ নিয়েছেন।

অন্যদিকে, সরকারের যথাযথ পদক্ষেপ ও অনুকূল আবহাওয়ার কারণে কৃষকদের বাড়াতে এ বছর বেলার উৎপাদিত বাম্পার ধান সঠিক সময়ে কৃষকের ঘরে উঠতে হবে তা নিশ্চিত করার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে; অন্য অনেকের মতোই শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের কৃষকদের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানানো হয়েছে।

পূর্বোক্ত পরিস্থিতিতে দেশ যেসব অঞ্চলে কৃষকদের বেরায় ধান আহরণে সহায়তা করছে, সেসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষা প্রধানদের কৃষকদের পর্যাপ্ত সহায়তা দেওয়ার জন্য অনুরোধ করা উচিত। আঞ্চলিক স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার এবং সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার জন্য, তারা তাদের সংলগ্ন অঞ্চল থেকে কৃষকদের সহায়তায় অন্যান্য শিক্ষক এবং দায়িত্বশীল (প্রশিক্ষিত স্কাউট / রাভার স্কাউটস, ইত্যাদি) শিক্ষার্থীদের সাথে চালিয়ে যাবে।

কৃষকদের একটি দর্শনে তাদের প্রতিষ্ঠান প্রাঙ্গণ ব্যবহার করার অনুমতি দেবে। এক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট সকলকে বেলার ধান সংগ্রহে কৃষকদের সর্বাধিক সহায়তা প্রদানের জন্য যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের আহ্বান জানানো উচিত।

এইচএস / এমআরএম

Leave a Reply