সংবিধান দিবস উপলক্ষে স্যুভেনির শিট অবমুক্ত

jagonews24

সংবিধান দিবস উপলক্ষে ডাক বিভাগ 40 টাকা মূল্যের একটি স্যুভেনির শীট, 10 টাকার একটি খোলার খাম, 5 টাকার ডেটা কার্ড এবং একটি বিশেষ সিল প্রকাশ করেছে।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার বুধবার (৪ নভেম্বর) স্যুভেনির শীট এবং খোলার খামটি প্রকাশ করেন এবং ডেটা কার্ড প্রকাশ করেন।

দিবসটি উপলক্ষে বিশেষ সিল ব্যবহৃত হবে।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বুধবার Dhakaাকা জিপিওর ফিলাটেলিক ব্যুরো থেকে স্যুভেনির শীট এবং খোলার খামগুলি বিক্রি হবে। পরে স্মারক শিট এবং খোলার খাম এবং ডেটা কার্ড অন্যান্য জিপিও এবং প্রধান ডাকঘর সহ দেশের সমস্ত ডাকঘর থেকে বিক্রি করা হবে।

চারটি জিপিও-র উদ্বোধনী খামে ব্যবহারের জন্য বিশেষ সিল রয়েছে।

৪ নভেম্বর সংবিধান দিবস। ১৯ 197২ সালের এই দিনে, সংবিধান দ্বারা বাংলাদেশের সংবিধান গৃহীত হয় এবং এটি ১৯ 197২ সালের ১ 16 ডিসেম্বর কার্যকর হয়।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রীও সংবিধান দিবসের তাত্পর্য তুলে ধরে একটি বিবৃতি দিয়েছেন।

এক বিবৃতিতে মন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু রচিত ১৯ 197২ সালের সংবিধান কেবল বাংলাদেশে নয় সমগ্র বিশ্বের অন্যতম সেরা গঠনতন্ত্র। তিনি বলেছিলেন যে বঙ্গবন্ধু একটি দুর্দান্ত উদাহরণ স্থাপন করেছেন যে রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের মাধ্যমে স্বাধীনতা অর্জনের পরে একটি দেশ ধ্বংসস্তূপে বাস করে এবং এত দ্রুত সংবিধান দিতে পারে।

‘গণতন্ত্র, ধর্মনিরপেক্ষতা, জাতীয়তাবাদ এবং সমাজতন্ত্রকে (সংবিধানের) নীতি হিসাবে গ্রহণ করার মাধ্যমে বাংলা ভাষা রাষ্ট্র বাংলাদেশকে প্রাতিষ্ঠানিক কাঠামোয় স্থান দিয়েছে। এই সংবিধান বাংলাকে বিশ্বের একমাত্র রাষ্ট্রভাষা হিসাবে প্রতিষ্ঠিত করেছে। ‘

মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার বলেছেন, ১৯ 197২ সালের ১২ ই অক্টোবর সংবিধান বিল উপস্থাপিত হওয়ার পরে গণপরিষদ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান গণপরিষদে বাংলাদেশের নতুন স্বাধীন ও সার্বভৌম রাষ্ট্রের খসড়া সংবিধানের বিষয়ে আলোচনা করেন। গণপরিষদে সংবিধানের বিষয়ে ভাষণে বঙ্গবন্ধু বলেছিলেন, ‘এই সংবিধানটি শহীদদের রক্তে রচিত। এই সংবিধানটি পুরো মানুষের আশা-আকাঙ্ক্ষার প্রতীক হিসাবে বেঁচে থাকবে। ‘

আরএমএম / এসআর / জেআইএম

করোনার ভাইরাস আমাদের জীবন বদলে দিয়েছে। আনন্দ, বেদনা, সংকট, উদ্বেগ নিয়ে সময় কাটায়। আপনি কিভাবে আপনার সময় কাটাচ্ছেন? জাগো নিউজে লিখতে পারেন। আজ পাঠান – [email protected]