সড়কে প্রাণ গেল একই পরিবারের ৫ জনের : গ্রামজুড়ে শোকের মাতম

একই পরিবারের ২ জন সদস্য রাস্তায় মারা যান

বরিশালের উজিরপুর উপজেলার জয়শ্রী গ্রামের আতিপাড়া রোডে dayাকা-বরিশাল মহাসড়কে তিন দিনের সংঘর্ষে ঝালকাঠি থেকে একই পরিবারের পাঁচ সদস্যসহ ছয়জন নিহত হয়েছেন। বুড়ো বাচ্চা একই পরিবারের পাঁচ সদস্যের মৃত্যুতে নিহতদের গ্রামের বাড়িতে শোক চলছে।

দুর্ঘটনার খবর শুনে স্থানীয়রা সন্ধ্যা থেকে ঝালকাঠি সদর উপজেলার নবগ্রাম ইউনিয়নের বাউকাঠি গ্রামে নিহতের বাড়িতে একত্রিত হয়। বিভিন্ন জায়গা থেকে আত্মীয়রাও আসছেন। তাদের আকাশ ছোঁড়া আহাজারি করায় এলাকার পরিবেশ ভারী হয়ে উঠেছে। এলাকায় শোকের ছায়া রয়েছে।

নিহতরা হলেন- বাউকাঠি গ্রামের আরিফ হোসেন (৩৫), তাঁর মা কোহিনূর বেগম (65৫), ছোট ভাই তারেক হোসেন কাওম (২৮), বোন শিউলি বেগম (৩০) এবং ভগ্নিপতি নজরুল ইসলাম (২৮)। অ্যাম্বুলেন্সের চালক আলমগীর কবির কুমিল্লা জেলার বাসিন্দা এই দুর্ঘটনায় মারা গেছেন।

ক্ষতিগ্রস্থদের পরিবারের সদস্যরা জানান, আরিফ Dhakaাকায় কর্মরত ছিলেন। বিয়ের সাত বছর পর, তাদের মেয়ের জন্ম Dhakaাকার উত্তরার একটি হাসপাতালে। আরিফের স্ত্রী Dhakaাকা ক্লিনিকে চিকিৎসাধীন। মঙ্গলবার গুরুত্বর অবস্থায় নবজাতকের মৃত্যু হয়। মরদেহ আনতে আরিফের মা কোহিনূর বেগম ও বোন শিউলি বেগম ঝালকাঠি থেকে Dhakaাকায় গিয়েছিলেন। অন্যরা livedাকায় থাকতেন। নিহতের নাম আরিফ বাউকাঠি গ্রামের চিকিৎসক। সিরাজুল ইসলামের বড় ছেলে মো।

তারা লাশ নিয়ে বুধবার একটি অ্যাম্বুলেন্সে ঝালোকাটির বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা হন। বরিশালের উজিরপুর উপজেলার জয়শ্রী গ্রামের আতিপাড়া রোডে ambাকা-বরিশাল মহাসড়কের একটি বাস-অ্যাম্বুলেন্স কাভার্ড ভ্যানের মধ্যে তিন-মুখী সংঘর্ষে তারা সকলেই ঘটনাস্থলেই মারা যান।

আতিকুর রহমান / এফআর