সুরক্ষা সরঞ্জাম সংকট, পাকিস্তানে চিকিৎসকদের আমরণ অনশন

সুরক্ষা সরঞ্জাম সংকট, পাকিস্তানে চিকিৎসকদের আমরণ অনশন

ইসলামাবাদ, ২ April এপ্রিল (রয়টার্স) – মহামারী প্রাদুর্ভাবের সময় ব্যক্তিগত সুরক্ষা সরঞ্জামাদি (পিপিই) সহ স্বাস্থ্যসেবা সরবরাহের জন্য প্রয়োজনীয় অন্যান্য সুরক্ষামূলক সরঞ্জামের ঘাটতিতে পাকিস্তানি চিকিৎসকরা অনশন ধর্মঘটে রয়েছেন। বার্তা সংস্থা এএফপি এই খবর জানিয়েছে।

ব্রিটিশ ডেইলি গার্ডিয়ানের মতে, ব্যক্তিগত সুরক্ষামূলক সরঞ্জামের অভাবে করোনাভাইরাস রোগীদের চিকিত্সা করার সময় দেড় শতাধিক পাকিস্তানি চিকিৎসক কোভিড -১৯ রোগে আক্রান্ত হয়েছেন। তাই অনেকেই এখন ঝুঁকিতে থাকা রোগীদের চিকিত্সা পরিষেবা দেওয়ার বিষয়ে আপত্তি করছেন।

ইয়ং ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অফ পাঞ্জাবের মতে, পাকিস্তানের সর্বাধিক আক্রান্ত প্রদেশ, করোনার। এছাড়াও, করোনার কারণে ইতিমধ্যে বেশ কয়েকজন চিকিৎসক মারা গেছেন। তাদের মধ্যে একজন 26 বছর বয়সী চিকিৎসক; যিনি স্বল্প সময়ে এই পেশায় যোগদান করেছিলেন।

শনিবার দেশটির সরকারী হাসপাতালের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকও স্ট্রোকের শিকার হয়ে মারা যান। পাঞ্জাব গ্র্যান্ড হেলথ অ্যালায়েন্সের প্রধান সালমান হাসিব বলেছিলেন যে প্রাথমিকভাবে প্রায় ৩০ জন চিকিৎসক ও নার্স পাঞ্জাবে অনশন কর্মসূচীতে গিয়েছিলেন।

হাসপাতালে অনশন কর্মসূচি পালনকারী চিকিৎসকরা প্রাদেশিক রাজধানী লাহোরে স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষের সরকারী ভবনের সামনে মিছিল করেন। তারপরে তাদের কমপক্ষে 200 জন সহকর্মী তাদের সাথে সেখানে যোগ দিয়েছিল।

পাঞ্জাব গ্র্যান্ড হেলথ অ্যালায়েন্সের প্রধান সালমান হাসিব বলেছিলেন, “যতক্ষণ না সরকার আমাদের দাবি ও দাবি মানবে না ততক্ষণ আমরা থামব না।” তারা ধারাবাহিকভাবে আমাদের দাবি মানতে অস্বীকার করেছে। সামনে থেকে ভাইরাস প্রতিরোধে কাজ করার পরেও আমরা নিরাপদ নই, তাই দেশের কত লোক ঝুঁকিতে রয়েছে। ‘

সূত্র: জাগোনিউজ

আর / 08: 14/26 এপ্রিল

Leave a Reply